যোগ বনাম জিম

যোগব্যায়াম কি পেশী গঠনে সহায়তা করতে পারে? আপনি যদি ঘন্টার পর ঘন্টা জিমে ওজন তোলায় ব্যয় করেন -তবে এটি বিশ্বাস করা আপনার পক্ষে কঠিন হতে পারে যে, এটা করে। এই নিবন্ধে, সদগুরু এই নিরন্তর বিতর্কের বিষয়ে তাঁর দৃষ্টিভঙ্গি দিয়েছেন: যোগ বনাম জিম।
Sadhguru Wisdom Article | Yoga vs Gym
 

সদগুরু: মানুষের পেশীতন্ত্র একটি অসাধারণ জিনিস। আমাদের পেশীগুলি দুর্দান্ত ভাবে কাজ করতে পারে এবং এগুলিকে শক্তিশালী করার মাধ্যমে একই সাথে উন্নত এবং খুবই নমনীয় করা যেতে পারে। আপনি যদি অনেক বেশি করে ওজন ওঠান তাহলে আপনার পেশীগুলি দেখতে বড় হবে, তবে নমনীয়তা ছাড়াই। যদি আপনি এমন লোকজনদের দেখেন যারা বড় আকারের পেশী বানিয়েছেন, তবে দেখবেন তারা ঠিকমতো নমস্কার করতেও পারছেন না। এমনকি তারা ঝুঁকতেও পারেন না।

যদি আপনি এমন লোকজনদের দেখেন যারা বড় আকারের পেশী বানিয়েছেন, তবে দেখবেন তারা ঠিকমতো নমস্কারও করতে পারছেন না।

যদি আপনি শুধু দেখতে সুন্দর পেশী চান, তবে আজকাল এটি করার অনেক সহজ উপায় রয়েছে। আপনি 'বাইসেপ প্রতিস্থাপন' করতে পারেন। সিলিকন কেবলমাত্র স্তনে যায় না - এটি বাহুর মাংসপেশীতে, পায়ের পেশীতে, সমস্ত কিছুর মধ্যেই যায়। এগুলো কোন কাজের নয়, কিন্তু সেটা কোনো ব্যাপার নয়। আপনাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে না, কর্টিসোনস এবং হরমোন নিতে হবে না এবং জিমে গিয়ে ওজন তুলতে হবে না। এটা যদি শুধুই ভাল দেখানোর ব্যাপার হয়, অনেক সহজ উপায় আছে।

হ্যাঁ, শরীরচর্চা আপনাকে পেশীশক্তি প্রদান করে। তবে আপনি সম্পূর্ণ ভিন্ন উপায়ে একই শক্তি তৈরি করতে পারেন এবং সর্বোপরি আপনি নিজের শরীরকে নমনীয় রাখতে পারেন, যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। স্বাস্থ্য, শক্তি, মন এবং আধ্যাত্মিক মাত্রার দিক থেকে ভালো থাকার বিভিন্ন দিক রয়েছে। যখন আমরা সকালে 30 মিনিট থেকে এক ঘন্টা বিনিয়োগ করি, আমরা দেখতে চাই যে সুবিধাটি কেবলমাত্র পেশীগুচ্ছ গুলিতে নয়, আমাদের সার্বিক উন্নতি ঘটাচ্ছে।

আপনি যদি পেশী তৈরি করতে চান, আপনি কি কোনও লোহা তুলবেন না? আপনি করতে পারেন, কারণ আধুনিক প্রযুক্তির ফলে শারীরিক অনুশীলন এবং কাজকর্ম আমাদের জীবন থেকে দূরে সরে গেছে। সবকিছু মেশিন দিয়ে করা হয়। আপনার আইফোন ছাড়া, সেই অর্থে আপনাকে কোনও জিনিসই বহন করতে হয় না। কাজেই, যেহেতু আপনি সারাদিন আপনার অঙ্গগুলো ব্যবহার করছেন না, তাই জিমের হালকা ওজনের প্রশিক্ষণ ঠিকই আছে।

যোগ - অনুশীলন নয়

যোগ অনুশীলনের কোনও প্রকার নয়। এর অন্যান্য মাত্রাও রয়েছে। যোগকে একটি জিমন্যাস্টিক প্রক্রিয়াতে নামিয়ে আনা - গুরুতর অপরাধ হবে। তবে উপ-যোগ নামে কিছু জিনিষ আছে যার অর্থ উপ-যোগ বা কোনকিছু করার উপযুক্ত প্রক্রিয়া, যেখানে এর সাথে কোনও আধ্যাত্মিক মাত্রা যুক্ত নেই। আপনি যদি যোগের উপ-যোগ বা অঙ্গমর্দন পদ্ধতিটি করেন তবে ফিটনেস নিশ্চিত। এছাড়াও আপনার কোনও সরঞ্জামের প্রয়োজন হবে না। আপনার কেবলমাত্র মেঝেতে ছ'ফুট -বাই -ছ'ফুট স্থান দরকার। আপনি 'সুপার-ফিট' হয়ে উঠবেন এবং আপনার পেশী এবং সমস্ত কিছু তৈরি করতে পারবেন। অঙ্গমর্দন এবং উপ-যোগের সমস্ত অনুশীলন করার সময় আপনার নিজের দেহের ওজনকেই ব্যবহার করা হয়। তখন আপনার আর কোনও অজুহাত থাকবে না যে আশেপাশে কোনও জিম নেই। আপনি যেখানেই থাকুন না কেন অনুশীলন করতে পারেন, কারণ আপনার শরীর তো রয়েছে। জিমের কোনও ওজন প্রশিক্ষণের মতো এটিও দেহ গঠনে একইভাবে কার্যকর। এটি আপনাকে ভব্য মানুষের মতো দেখতে এবং শরীরে কোনও অপ্রয়োজনীয় চাপ তৈরি না করেই আপনাকে খুব শক্তিশালী করে তুলবে। একমাত্র কথা হল- আপনি শুধুই পেশীগুচ্ছ হয়ে উঠবেন না। অনেক মানুষ এরকম হয়ে গেছেন। তারা ভাবেন যে তারা ফিট আছেন তবে আমি মনে করি যে তারা 'স্ট্রেইট জ্যাকেটে' আছেন! এটি কেবলমাত্র শক্তি বা আপনার পেশীগুলির ফুলে ওঠা নয়, আপনার শরীরের নমনীয়তা- যা শরীরের ঠিকঠাক কাজকর্মের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

যে জিনিসগুলোর অস্তিত্বই আপনি কখনও ভাবেননি- সেগুলি আপনার কাছে একটি জীবন্ত বাস্তব হয়ে উঠবে, কেবলমাত্র জাগতিকতার উর্দ্ধে একটি মাত্রা জীবন্ত হয়ে ওঠার কারণে।

যোগাতে আমরা কেবল পেশীবহুল শক্তির দিকেই তাকাই না। অঙ্গ- স্বাস্থ্যও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যোগ পদ্ধতিটি বিকশিত হয়েছে- যাতে অঙ্গগুলির স্বাস্থ্যেরও যত্ন নেওয়া হয়। আপনার পেশী প্রচুর পরিমাণে থাকলেও যদি আপনার লিভারটি সঠিকভাবে কাজ না করে, তবে এর কী উপকার? এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যে শরীরটি নমনীয় এবং ব্যবহারযোগ্য হয়। অঙ্গ- স্বাচ্ছ্যন্দ বলেও কিছু আছে। যোগাতে আমরা কেবল পেশীবহুল শক্তির দিকেই তাকাই না। অঙ্গ- স্বাস্থ্যও খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যোগ পদ্ধতিটি বিকশিত হয়েছে- যাতে অঙ্গগুলির স্বাস্থ্যেরও যত্ন নেওয়া হয়। আপনার পেশী প্রচুর পরিমাণে থাকলেও যদি আপনার লিভারটি সঠিকভাবে কাজ না করে, তবে এর কী উপকার? এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যে শরীরটি নমনীয় এবং ব্যবহারযোগ্য হয়। অঙ্গ- স্বাচ্ছ্যন্দ বলেও কিছু আছে।

শরীরকে সোজা করে রাখা এইজন্য নয় যে আমরা আরাম পছন্দ করি না, এর কারণ আমাদের অভিজ্ঞতা এবং উপলব্ধিতে আরাম সম্পূর্ণ আলাদা। আপনি আপনার পেশীগুলিকে প্রশিক্ষণ দিতে পারেন যাতে মেরুদণ্ড সোজা থকলেও এরা স্বচ্ছ্যন্দ বোধ করে, কিন্তু জবুথবু অবস্থায় নিজের অঙ্গগুলিকে স্বচ্ছ্যন্দ বোধ করতে প্রশিক্ষণ দিতে পারবেন না। এটি করার কোনও উপায় নেই। তাই আমরা শরীরকে প্রশিক্ষণ দেওয়া বেছে নিই, যাতে করে এভাবে বসলে আমাদের কঙ্কাল তন্ত্র এবং পেশীতন্ত্র আরামদায়ক থাকে।

যোগ - অস্তিত্বকে উন্মুক্ত করা

যোগাভ্যাস এমন কিছু নয় যা আপনি রোগা হওয়ার জন্য বা আপনার পিঠের ব্যথা বা মাথা ব্যাথার জন্য করেন। স্বাস্থ্যবান ও শান্তিশালী হওয়া এমনিতেই ঘটবে, তবে এগুলি যোগের পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া, যোগের মূল উদ্দেশ্য নয়। ওজন কমানোর জন্য বা সুস্থ থাকতে আপনাকে যোগব্যায়াম করতে হবে না। আপনাকে কেবল বুঝে খেতে হবে, আর টেনিস খেলা বা সাঁতার কাটলেই হবে। যোগের মূল উদ্দেশ্য হ'ল -আপনার মধ্যে আরও একটি মাত্রা জীবন্ত করে তোলা, যা জাগতিকতার উর্দ্ধে। যখন সেটি জীবন্ত হয়ে উঠবে, ধীরে ধীরে আপনার কাছে অসংখ্য রকম ভাবে অস্তিত্ব নিজেকে মেলে ধরবে। যে জিনিসগুলোর অস্তিত্বই আপনার জানা ছিল না - সেগুলি আপনার কাছে একটি জীবন্ত বাস্তব হয়ে ওঠবে; কেবলমাত্র জাগতিকতার উর্দ্ধে একটি মাত্রা জীবন্ত হয়ে ওঠার কারণে।

Editor’s Note: Excerpted from Sadhguru’s discourse at the Isha Hatha Yoga School’s 21-week Hatha Yoga Teacher Training program. For more information, visit www.ishahathayoga.com.