জীবন্ত মৃত্যু

সাম্প্রতিক বক্তৃতায়, সদগুরু নতুন বছরকে স্বাগত জানাচ্ছেন একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা মনে করিয়ে দিয়ে -জীবনের একমাত্র নিশ্চয়তা- মৃত্যুর সঙ্গে আরও অন্তরঙ্গ হতে হবে। আমরা মৃত্যুকে একটি ভয়ঙ্কর ব্যাপার হিসেবে দেখতে অভ্যস্ত, এভাবেই আমরা বড় হয়েছি, কিন্তু সদগুরু ব্যাখ্যা করছেন যে নিঃশ্বাস - প্রশ্বাসের মত আমাদের জীবন ও মৃত্যু, উভয়কেই আলিঙ্গন করা উচিত। কিভাবে সঠিক পথ বেছে নেওয়া যায় এবং কিভাবে নিজের অস্তিত্বকে অতি উজ্জ্বল করে তোলা যায় -সেই ব্যাপারে তিনি পথ দেখিয়েছেন। "জীবন্ত মৃত্যুর" প্রতিমূর্তি হতে পারলে এই গ্রহে যতখানি সময় আপনি কাটাবেন, তা একটি ভিন্ন সম্ভাবনার সৃষ্টি করবে।
 
Sadhguru Wisdom Sadhguru-Spot | Living Death
 
 
 

সদগুরু: আগামী বছর আপনাদের খুব সুন্দর ভাবে কাটুক! 

সময়ের অর্থ বিভিন্ন মানুষের কাছে বিভিন্ন রকম। কিছু মানুষ সময়ের বোঝা বয়ে বেড়ান। একটি শিশু এবং একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের মধ্যে পার্থক্য হল, একটি শিশুর উচ্ছ্বসিত জীবন এবং অনেক প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের গুরুগম্ভীর জীবনের মধ্যে পার্থক্য হল, প্রধানত সময়ের বোঝা। সময় আপনার কাছে গুরুভার হয়ে ওঠার একমাত্র কারণ আপনি জানেন না কিভাবে স্মৃতিকে বহন করতে হয়। 2019, আরেকটি বছর শেষ হলো- কেউ এটিকে নিজের ওপর আরও একটি বছরের বোঝা হিসেবে দেখতে পারেন। কিন্তু একটি বছর শুধুমাত্র সময়ের পরিমাপ, এবং বাস্তবতা হল বছরগুলো উন্মোচিত হচ্ছে। আরেকটি বছর চলে যাওয়ার অর্থ- একটি বছর কম বইতে হবে। ব্যাপারটা কি আপনাকে হালকা করে না? আপনি আগামী বছরকে উদযাপন করতে পারেন, কিংবা যে বছরটি মৃত এবং বিগত তাকে উদযাপন করতে পারেন; আপনার জীবনে একটা বছর কম সামলাতে হবে।  

গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হল: আপনি এখানে এমনভাবে থাকবেন যে আপনি একইসঙ্গে জীবন এবং মৃত্যু দুটোরই অভিজ্ঞতা লাভ করছেন।

আমি আপনার জীবনকে মগ্ন থাকার তীব্রতা অনুসারে পরিমাপ করব। 2019 কি আপনার জীবনে মগ্ন থাকার একটি বছর ছিল? নাকি জটপাকানো একটি বছর? এটাই আপনাকে বিশ্লেষণ করতে হবে, কারণ মূলত জীবন এবং মৃত্যু এই দুটো জিনিস নিয়েই আপনার চিন্তাভাবনা। বাকি সবই আনুষঙ্গিক। 

'মৃত্যু' শব্দটি একটি ভীষণ নেতিবাচক শব্দে পরিণত হয়েছে। মানুষ মনে করে যে এটা একটা ভয়ংকর জিনিস। যেটাকে আপনি ভয়ংকর মনে করবেন সেটা আপনি আপন করে নিতে পারবেন না, তাই না? আপনার মনে এই ধারণাটিকে পরিবর্তন করতে হবে। আপনাকে মৃত্যুর ধারনাটি অবশ্যই বুঝতে হবে। এটি জীবনের বিপক্ষে নয়। মৃত্যু আছে বলেই জীবন ঘটে চলেছে। যদি আপনি ধারণাটি ঠিকভাবে বুঝতে পারেন, তবেই আপনি উভয়কে আলিঙ্গন করতে পারবেন। 

যারা মারা যান, তারাই বাঁচেন।

এই গ্রহ বা সৃষ্টির ইতিহাসে, আপনি খুবই সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য জীবিত থাকেন। বাকি সময়টা- আপনি মৃত। কাজেই আপনার জীবনের কারাদণ্ড খুব বেশি নয়। যে দীর্ঘ সময় আপনি মৃত থাকবেন সেই তুলনায় এটা খুবই সংক্ষিপ্ত। আপনি দীর্ঘ সময় ধরে মৃত ছিলেন বলেই এই মুহূর্তে আপনি উজ্জ্বল হয়ে বেঁচে আছেন এবং আপনি আবার অতি দীর্ঘ সময়ের জন্য মৃত থাকবেন বলেই এই উজ্জ্বল জীবন সম্ভব। জীবনে "এক বনাম অন্য", এই ধারণাটি একটি অর্থহীন ধারণা। কার্যত জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে - তা সেটা পুরুষ-প্রকৃতি ও স্ত্রী-প্রকৃতি, জীবন ও মৃত্যু, অন্ধকার ও আলো, শব্দ এবং নীরবতা, যাই হোক না কেন - একটি অন্যকে ছাড়া হতে পারে না। এরা একে অন্যের পরিপূরক, একে অন্যের বিপরীত নয়। 

এখন আপনি সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য জীবিত আছেন, কিন্তু আপনি শুধুমাত্র এই সংক্ষিপ্ত সময়টিকে আলিঙ্গন করতে চান এবং বাকি সময়কে নয় - এটা এভাবে কাজ করে না, কারণ পুরোটাই এক। এটা হল জীবন্ত মৃত্যু। গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল এখানে এমনভাবে থাকতে হবে যে আপনি সর্বক্ষণ জীবন এবং মৃত্যু দুটোরই অভিজ্ঞতা লাভ করবেন। এটাই হল জীবন্ত মৃত্যুর অর্থ। একদিন আপনি মৃত্যুবরণ করবেন বলেই এখন আপনার জীবন মূল্যবান। যদি আপনি কোনদিন মারা না যেতেন, আপনি কি এই জীবনের প্রতি কোন মনোযোগ দিতেন? একমাত্র যারা মারা যান, তারাই বাঁচেন। 

যদি আপনি সুযোগ পান, কারও অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় গিয়ে অংশগ্রহণ করুন। ভারতবর্ষে, এটাই সংস্কৃতি যে যদি আপনি দেখেন কোন মৃতদেহ দাহ বা সমাধির জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে - আপনাকে অবশ্যই শবদেহের সাথে কমপক্ষে তিন- পা হাঁটতে হবে, প্রতীকীস্বরূপ যে "আমি আপনার সঙ্গে আছি।" এটা মৃত ব্যক্তির প্রতি সম্মানবশত এবং যে জীবিত ব্যক্তিরা তার কাছের লোক, তাদের প্রতি সহানুভূতি। 

যোগার অর্থ হল একতা - অর্থাৎ আপনার কাছে জীবন এবং মৃত্যু এক হয়ে গেছে।

মৃত্যু কোন বিকল্প নয় - এটা অবশ্যম্ভাবী। এটা সৃষ্টির ইচ্ছানুসারে। জীবন আমাদের বিকল্প। যদি আপনি এই বিকল্পটি ভালভাবে অনুশীলন করতে চান, এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি জীবনের প্রতিটি মাত্রাকে সমভাবে গ্রহণ করবেন। যদি আপনি কেবলমাত্র এই জীবনের স্ফুলিঙ্গকে স্বীকার করেন এবং যা আপনাকে সৃষ্টি করেছে তা স্বীকার না করেন- যা আপনার মূল ভিত্তি, তাহলে আপনার কোন বিকল্প নেই ; আপনি একটি তাড়না-চালিত শক্তি হয়ে উঠবেন। আপনি জীবনেও মৃত্যুর মত বাঁচবেন - অপরিহার্য ভাবে, সচেতনভাবে নয়, বিকল্প হিসেবে নয়। এই বিকল্পটি ভালভাবে অনুশীলন করতে হলে আপনাকে সবকিছু একান্তভাবে আপন করে নিতে হবে - যেভাবে আপনি জীবনকে আলিঙ্গন করেন, সেভাবে মৃত্যুকেও আলিঙ্গন করুন; আপনি সবকিছু আপন করে নিন। যোগশাস্ত্রে, প্রতিটি শ্বাসকে এভাবে দেখা হয়- প্রাশ্বাসই জীবন, এটা জন্ম, এবং নিঃশ্বাস হল মৃত্যু। জীবন এবং মৃত্যু সবসময় একই শ্বাসের মধ্যে ঘটে চলেছে- এটাই যোগের লক্ষ্য। যোগের অর্থ একতা - অর্থাৎ জীবন এবং মৃত্যু আপনার মধ্যে এক হয়ে গেছে। আপনার জন্য তারা দুটো পৃথক সত্তা নয়; আপনি জীবিত মৃত্যু। যখন আপনি জীবিত মৃত্যু- পরিণাম একটি চমৎকার জীবন, কারণ মাটিকে উপেক্ষা করে কি কোন গাছ বেড়ে উঠতে পারে? 

যদি আপনি সত্যিই প্রাণোচ্ছ্বল হতে চান- এমনভাবে বাঁচুন যে আপনার জীবনের প্রকৃতি আপনিই স্থির করবেন, তখন এটা গুরুত্বপূর্ণ যে আপনাকে জীবিত মৃত্যু হতে হবে, অর্থাৎ আপনি আপনার সমগ্র জীবনকে পূর্ণরূপে গ্রহণ করেছেন। যদি আপনি তাদের আলাদা করেন, বিকল্পটি ব্যবহার করার কোন শক্তি আপনার নেই, কারণ দাঁড়াবার মত আপনার কোন জায়গা নেই। মৃত্যুর শাশ্বত ভিত্তি ছাড়া, জীবনের একটি স্ফুলিঙ্গ- আপনি এখন যা, সেটা সম্ভব নয়। 

একমাত্র সচেতনভাবে দুটোকেই আপন করে নেবার মাধ্যমে আপনি অবিশ্বাস্যভাবে জীবন্ত হয়ে উঠবেন, এমনভাবে যা এই জীবনের অস্তিত্বকে দর্শনীয় করে তুলবে; আপনি পৃথিবীতে কি করেন সেই কারণে নয়, বরং শুধুই আপনার অস্তিত্বের ধরনের জন্য। যেভাবে আপনি নিজের মধ্যে বিদ্যমান থাকেন সেটা দর্শনীয় হয়ে উঠতে পারে। 

আগামী বছর- 2020, সকলের জন্য অভূতপূর্ব অভিজ্ঞতা নিয়ে আসুক। 

Love & Grace